গাজীপুরে কিশোরী গণধর্ষণ: প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: 7:40 PM, October 10, 2020
নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুর মহানগরের সালনা এলাকায় এক কিশোরী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব সদস্যরা।

শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাসন থানার তেলিপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার আরিফ ওরফে সবুজ (২৮) শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী থানার বরুড়াজানি গ্রামের মৃত খোরশেদ আলমের ছেলে। তিনি বাসন থানার টেকনগপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে গ্যারেজমিস্ত্রীর কাজ করতেন।

র‌্যাব-১ এর গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন, গত ১ অক্টোবর রাত ১০টার দিকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সালনার স্থানীয় এক স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্রীকে বাসায় ফেরার পথে অপহরণ করে আরিফসহ তার বন্ধুরা। পরে আরিফের বন্ধু রাসেলের সালনাস্থ ভাড়া বাসায় নিয়ে সারারাত ভিকটিমের হাত, পা ও মুখ বেঁধে তিনজন পালাক্রমে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করে।

পরবর্তীতে ভোররাতে ভিকটিমকে হাত, পা ও বাঁধা অবস্থায় মুখে স্কচটেপ এবং গলায় ওড়না পেচিয়ে বক্সখাটের ভেতর আটকে রেখে ধর্ষণকারীরা পালিয়ে যায়। পরে গোঙানির শব্দ পেয়ে পাশের বাসার ভাড়াটিয়ারা গিয়ে ভিক্টিমকে দেখতে পায় এবং ভিক্টিমের পরিবারকে খবর দেয়।

পরে স্বজনরা এলাকাবাসীর সহায়তায় ভিকটিমকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় পরদিন ভিকটিমের মা বাদী হয়ে গাজীপুর মেট্রো সদর থানায় একটি গণধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

শুক্রবার রাত আড়াইটার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নগরীর তেলিপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি আরিফ ওরফে সবুজকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব সদস্যরা। তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। পলাতক আসামিদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।