বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: নারী-শিশুসহ এ পর্যন্ত ৩০ জনের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: 2:08 PM, June 29, 2020
ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার শ্যামবাজার এলাকায় লঞ্চডুবির ঘটনায় নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ৩০ জনের লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস, নৌ পুলিশ, কোস্টগার্ডের সদস্যরা।সোমবার সকাল ৯টা ৩৩ মিনিটের দিকে ৬০ থেকে ৭০ জন যাত্রী নিয়ে এম ভি গ্রিন ভাট নামে একটি দেড়তলা টেডি লঞ্চঘাটে ভেড়ার সময় আরেকটি নৌযানের ধাক্কায় ডুবে যায়।

খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা এবং উদ্ধার কাজ শুরু করে।

দায়িত্বরত কর্মকর্তা জানান, উদ্ধার অভিযানের সময় ৩০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। অনেকেই সাঁতার কেটে বুড়িগঙ্গা নদীর পাড়ে উঠতে সক্ষম হয়েছে। উদ্ধার কাজ এখনও চলমান রয়েছে।

সদরঘাট নৌ থানার ওসি রেজাউল করিম ভূঁইয়া জানান, সকাল ৮টায় মুন্সীগঞ্জ জেলার কাঠপট্টি থেকে প্রায় ৬০ থেকে ৭০ জন যাত্রী নিয়ে গ্রিন ভাট ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিল।

বিআইডব্লুউটিএর যুগ্ম পরিচারক একেএম আরিফ উদ্দিন জানান, ডুবে যাওয়া লঞ্চটি উদ্ধার করার জন্য উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, বেশিরভাগ যাত্রী উপরে উঠতে সক্ষম হয়েছে। নিখোঁজ যাত্রীদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা কাজ করছে।