পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মার্কিন তরুণীর ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত: 6:56 PM, June 6, 2020

জাগ্রত বাংলাদেশ

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানি সাবেক মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন মার্কিন সংবাদিক ও ব্লগার সিন্থিয়া ডি রিচি। তার অভিযোগ, ইসলামাবাদে প্রেসিডেন্ট হাউসে তাকে ধর্ষণ করেন সে দেশের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রেহমান মালিক।

প্রাক্তন পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি তার গায়ে হাত তোলেন বলেও অভিযোগ করেছেন সিন্থিয়া। নিরপেক্ষ তদন্ত হলে, সেই সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যপ্রমাণ তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যম নিউজ এইটটিনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্লগার সিন্থিয়া দাবি করেছেন মন্ত্রী রহমান মালিক তাকে ২০১১ সালে পানীয়ের সঙ্গে উত্তেজক ওষুধ মিশিয়ে ধর্ষণ করে।

এখানেই শেষ নয়, তার আরও দাবি, পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি ও প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মখদুম শাহবুদ্দিন ইসলামাবাদে প্রেসিডেন্ট হাউসে তার উপর শারীরিক নির্যাতন করে। আসিফ আলি জারদারি ছিলেন তখন প্রেসিডেন্ট।

সিন্থিয়া ডি রিচি নামে এই নারীর অভিযোগের পরে রীতিমতো চাপে বিলাওয়াল ভুট্টোর দল পাকিস্তান পিপলস পার্টি। দলের তরফে ওই নারীর বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করা হয়েছে। তাদের দাবি, ব্লগার সিন্থিয়া মিথ্যে কথা বলছেন।

একটি ফেসবুক পোস্টে সিন্থিয়া জানিয়েছেন, পাকিস্তান তার দ্বিতীয় বাসস্থান। তিনি লিখছেন, ‘আমার কাছে এখনও প্রমাণ রয়েছে। আগামী সপ্তাহে বিস্তারিত তথ্যপ্রমাণ প্রকাশ করব।’

গত সপ্তাহে সিন্থিয়া একটি বই প্রকাশ করেন। বইটির নাম, ‘Indecent Correspondence: Secret sex life of Benazir Bhutto’। বইটিতে বেনজরি ভুট্টো, তাঁর ছেলে বিলাওয়াল ভুট্টো ও দলের প্রবীণ মন্ত্রী শেরি মালিকের ব্যক্তিগত জীবনের নানা গল্প লেখা রয়েছে বইটিতে।

ট্যুইট করে মার্কিনী ওই নারী লেখেন বলেন, এই ঘটনা ২০১১ সালে পাকিস্তানের তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ঘরে ঘটেছিল। ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যু সেই সময়েই হয়েছিল। আমি ভেবেছিলাম আমাকে ভিসা দেওয়ার জন্য ডেকেছেন তিনি, কিন্তু আমি যাওয়ার পরেই পানীয়ে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে খাইয়ে দেওয়া হয়।