রাজধানীতে মাকে হত্যার চেষ্টা করা সেই ছেলে গ্রেফতার

প্রকাশিত: 10:32 PM, May 18, 2020
জাগ্রত বাংলাদেশ

রাজধানীর কলাবাগানে মাকে হত্যার চেষ্টা করা মাদকাসক্ত ছেলে খান মিল্লাত হোসেনকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। রোববার মধ্য রাতে পান্থপথ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার র‌্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার (সিপিসি-২) মেজর এইচ এম পারভেজ আরেফিন গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, রোববার মধ্য রাতে পান্থপথ চেকপোস্টে তল্লাশির সময় মিল্লাতকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার মোটরসাইকেলে থাকা ব্যাগ থেকে একটি দেশি অস্ত্র ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।
মাদকাসক্ত মিল্লাত তার মা নুরুন্নাহার নুরুকে টাকার জন্য প্রায়ই মারধর করতো। এমনকি মাকে মারধর করে তাকে ওড়না দিয়ে পেঁচিয়ে ফ্যানের সঙ্গেও ঝুলিয়ে রাখতো। ছেলের অত্যাচারের ভয়ে নুরুন্নাহার সবসময় দরজা বন্ধ করে থাকতেন। এরপরও নিস্তার মিলতো না ছেলের অত্যাচার থেকে।
সর্বশেষ গত ১০ মে ছেলে মিল্লাত নেশার জন্য মায়ের কাছে টাকা চায়। টাকা দিতে না পারায় মাকে অনেক মারধর করে। এক পর্যায়ে ছুরি দিয়ে মায়ের গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করে। নুরুন্নাহার পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে দিয়ে ফের হত্যার চেষ্টা করে মিল্লাত। পরে প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে মায়ের গলার সোনার চেন নিয়ে পালিয়ে যায় মিল্লাত। যাওয়ার আগে ভেঙে ফেলে বাসার টিভি, ফ্রিজসহ অনেক আসবাবপত্র।
অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে সেইদিনই কলাবাগান থানায় ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করেন মা। ওই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
জানা গেছে, মেয়ের সরকারি চাকরির সুবাদে পাওয়া কলাবাগান গেজেটেড অফিসার্স ডরমেটরিতে ছেলেকে নিয়ে থাকেন ওই বৃদ্ধা মা। তিন বছর আগে মারা যান তার স্বামী খান শাহাদাৎ হোসেন। স্বামী মারা যাওয়ার পর ছেলে মিল্লাত মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। তাকে মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করা হলেও পুনরায় সে নেশায় জড়িয়ে পড়ে।