করোনায় বুদ্ধ পূর্ণিমা ঘরে বসে উদযাপনের সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত: 3:11 PM, May 2, 2020

জাগ্রত বাংলােদশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) সৃষ্ট বর্তমান পরিস্থিতিতে আগামী ৬ মে বৌদ্ধ ধর্মের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা ঘরে বসে উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন জানিয়েছে, আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ ভাইরাসে আক্রান্ত। এ কারণে সরকার ঘোষিত লকডাউনের আওতায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এবার বাংলাদেশের সকল অঞ্চলের শীর্ষ বৌদ্ধ সংগঠনগুলো; আলোচনা সাপেক্ষে বিশেষ করে বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতি, বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘ, বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন, বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভা, বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভা, পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ-বাংলাদেশ, বনভন্তে শিষ্য সংঘসহ সকল বিহার, প্যাগোডায় কোন রকম শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমার আনুষ্ঠানিক কর্মসূচি পালন করা হবে না।

শুধুমাত্র বৌদ্ধ বিহারে অবস্থানরত ভিক্ষু সংঘরা বিহারে ধর্মীয় অনুষ্ঠান, পূজা, বন্দনাসহ ধর্মীয় কার্য সমাধা করবেন। ভক্তবৃন্দ, উপাসক-উপাসিকাগণ নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করে ধর্মীয় কার্য প্রতিপালন করবেন।

বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ভিক্ষু সুনন্দপ্রিয় বলেন, আমরা নিজ নিজ বাড়িতে ধর্মীয় কার্য সম্পাদন করে আমাদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও প্রিয় মাতৃভূমিকে করোনাভাইরাস মুক্ত রাখবো। ভগবান বুদ্ধের আহ্বান অনুযায়ী আমরা করোনাকালিন হতদরিদ্র মানুষের পাশে দান হস্ত প্রসারিত করবো। সে সাথে দেশের সার্বিক মঙ্গল ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য কামনা করবো যেন দেশকে আরও অধিক সেবা প্রদান করতে পারে।

প্রতি বছর বাংলাদেশে বুদ্ধ পূর্ণিমা অত্যন্ত ঝাঁকজমকপূর্ণ পরিবেশে উদযাপন করা হয়। এছাড়া দিনটিকে জাতিসংঘ ‘ইউনাইটেড নেশন ডে অব বৈশাখ’ নামে আন্তর্জাতিক দিবস হিসেবেও ঘোষণা করেছে।