বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৬৫ হাজারের বেশি

প্রকাশিত: 8:25 AM, April 21, 2020

জাগ্রত বাংলাদেশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিশ্বে প্রতিনিয়তই আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে আতঙ্ক। ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। প্রাণঘাতী এ ভাইরাস থেকে বাঁচতে মানুষ গৃহবন্দি হয়ে পড়েছে। গত বছরের ডিসেম্বরের পর থেকে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন ১ লাখ ৬৫ হাজারের বেশি মানুষ। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২৪ লাখের বেশি। ফলে গোটা বিশ্ব এখন করোনার তণ্ডবে দিনপার করছে। এছাড়া এখন পর্যন্ত প্রাণঘাতী এই ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৬ লাখ ১৭ হাজার ১৩ জন।

তবে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যায় এখন পর্যন্ত সব দেশকে ছাড়িয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দেশটির ধারে কাছে নেই অন্য কোনো দেশ। যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৭ লাখ ৬৩ হাজার ৮৩৬ জন।

অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৪০ হাজার ৫৫৫ জন। ইতোমধ্যেই করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৭১ হাজার ১২ জন। তবে ১৩ হাজার ৫৬৬ জনের অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক।

যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের সবগুলোতেই প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। তবে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনা নিউইয়র্কে। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রে যতজন করোনায় প্রাণ হারিয়েছে তার মধ্যে অধিকাংশই নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের।

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে স্পেন, ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, যুক্তরাজ্য। বিশ্বের শক্তিশালী দেশগুলোও করোনার সঙ্গে পেরে উঠছে না। এখন পর্যন্ত স্পেনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯৮ হাজার ৬৭৪ এবং মারা গেছে ২০ হাজার ৪৫৩ জন। অপরদিকে, ইতোমধ্যেই করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৭৭ হাজার ৩৫৭ জন এবং ৭ হাজার ৩৭১ জনের অবস্থা গুরুতর।

ইতালিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৭৮ হাজার ৯৭২ জন। মারা গেছে ২৩ হাজার ৬৬০ জন। অপরদিকে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ৪৭ হাজার ৫৫ জন। তবে ২ হাজার ৬৩৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এদিকে, ফ্রান্সে করোনায় আক্রান্ত ১ লাখ ৫২ হাজার ৮৯৪ এবং মারা গেছে ১৯ হাজার ৭১৮ জন। করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৩৬ হাজার ৫৭৮ জন। তবে ৫ হাজার ৭৪৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

জার্মানিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৪৫ হাজার ৭৪২ এবং মারা গেছে ৪ হাজার ৬৪২ জন। ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ৮৮ হাজার। তবে এখনও ২ হাজার ৮৮৯ জনের অবস্থা গুরুতর।

অপরদিকে, যুক্তরাজ্যে ১ লাখ ২০ হাজার ৬৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছে ১৬ হাজার ৬০ জন। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত ১ হাজার ৫৫৯ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের উহান শহরে প্রথম করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ে। এরপর চীন থেকেই প্রাণঘাতী এই ভাইরাস অন্যান্য দেশে ছড়িয়ে পড়তে থাকে। গত কয়েক মাসে অন্যান্য দেশে করোনার বিস্তার বাড়তে থাকলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়েছে চীন।

কয়েক মাসের চেষ্টায় চীন করোনার বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে পেরেছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার ৭৪৭ এবং মারা গেছে ৪ হাজার ৬৩২ জন। তবে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ৭৭ হাজার ৮৪ জন। এছাড়া ৮১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।