গাজীপুর কাপাসিয়ায় আরো ৯ জন করোনা আক্রান্ত, মোট আক্রান্ত ১৮ জন

প্রকাশিত: 7:01 PM, April 14, 2020

জাগ্রত বাংলাদেশ 

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় গত ২৪ ঘন্টায় আরো ৯ জন করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ১৮ জন।

মঙ্গলবার দুপুরে অনলাইন প্রেস ব্রিফিংয়ে যুক্ত হয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নতুন করে যে ২০৯ জনের করোনা আক্রান্তের খবর দিয়েছেন কাপাসিয়ার ৯ জন তাদের অংশ।

কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: আব্দুস সালাম সরকার জানান, গত ২৪ ঘন্টায় কাপাসিয়া উপজেলায় নতুন করে আরো ৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে উপজেলার দস্যু নারায়ণপুর গ্রামের ছোয়াঁ এগ্রো প্রোডাক্ট লিমিটেড কারখানায় কর্মরত শ্রমিক রয়েছে ৭ জন। এ নিয়ে উক্ত কারখানার মোট ১৪ জন শ্রমিকের শরীরে করোনাভিইরাস বা কোভিড ১৯ শনাক্ত হয়েছে।

আক্রান্ত ৭ জনকে আলাদা করে পূর্বে আক্রান্ত শ্রমিকদের সাথে একটি নির্দিষ্ট বড় কক্ষকে আইসোলেশন করে সেখানে রাখা হয়েছে। তাদেরকে একত্রে ঢাকায় পাঠানো হবে।

গত শুক্রবার উক্ত কারখানার একজন শ্রমিকের করোনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ হবার পর উক্ত কারখানা ও দস্যুনারায়নপুর গ্রামটি লক ডাউন করা হয়।

তিনি আরো জানান, কাপাসিয়া উপজেলা ছোয়াঁ এগ্রো প্রোডাক্ট লিমিটেডের ৭ শ্রমিক ছাড়াও আক্রান্ত অপর দুজন হলেন, পূর্বে আ্ক্রান্ত দুই জনের পরিবারের সদস্য, যারা আক্রান্তদের সংস্পর্শে এসেছিলেন। এরা হলো কাপাসিয়া উপজেলার কড়িহাতা ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের বাসিন্দা। এ গ্রামের ৩১ বছর বয়সী এক যুবক যে নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর এলাকায় একটি কারখানায় কাজ করতো। প্রথমে সে আক্রান্ত হয়েছিল। পরে তার পরিবারের অন্য লোকদের নমুনা পরীক্ষা করা হলে আজকে তার স্ত্রী করোনা আক্রান্ত বলে শনাক্ত হলো। অপরজন বারিষাব ইউনিয়নের ভেড়ারচালা গ্রামের বাসিন্দা গাজীপুর সিভিল সার্জন অফিসে নিরাপত্তারক্ষীর চাচা। গত শনিবার সন্ধ্যায় রামপুর ও ভেড়ারচালা দুটি বাড়িসহ আশপাশের কয়েক বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, উপজেলার বিভিন্ন এলাকার সন্দেহভাজন আরো ৩৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা পাঠানো হয়েছে।