সাংবাদিকদের মারধরের ঘটনায় সেই এসআই ক্লোজড

প্রকাশিত: 11:47 AM, October 6, 2019
 নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর আজিমপুরে সাংবাদিকদের মারধর করার ঘটনায় লালবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কালামকে প্রাথমিকভাবে ক্লোজড করা হয়েছে। রাত আড়াইটার দিকে তাকে ক্লোজড করা হয় বলে জানিয়েছেন ওই থানার ওসি কেএম আশরাফ। এর আগে, শনিবার মধ্যরাতে রাজধানীর আজিমপুরে সাংবাদিকদের মারধর করে লালবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কালাম। শুধু তাই নয় তাদের পকেটে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে বলেও দাবি করা হয়েছে। এর জেরে লালবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কালামকে প্রাথমিকভাবে ক্লোজড করা হয়েছে। রাত আড়াইটার দিকে তাকে এ নির্দেশ দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আশরাফ। জান যায়, রাতে এক বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে বাসায় ফিরছিলেন বিডিনিউজের সাংবাদিক কাজী মোবারক হোসেন ও সাংবাদিক ফখরুল ইসলাম শাহীন। রাত সোয়া ২টার দিকে আজিমপুরের শাখত বাড়ি বটতলা এলাকায় এলে তাদের মারধর করেন এক ওসি, এসআই ও কনস্টেবল। সাংবাদিক কাজী মোবারক বলেন, রাতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে বাসায় ফিরছিলাম। আমার বাসার সামনে চলেও আসি। এ সময় লালবাগ থানার এসআই কালাম ও এক কনস্টেবল আমার পথরোধ করেন এবং জোর করে গাড়িতে ওঠানোর চেষ্টা করেন। গাড়িতে উঠতে না চাইলে এসআই বলেন, তোকে ইয়াবা দিয়ে মামলা দেব। মামলা না খেতে চাইলে গাড়িতে ওঠ। তা সত্ত্বেও গাড়িতে না উঠলে তিনি আমাকে মারধর করেন। এ সাংবাদিক আরো বলেন, আমার সঙ্গে ছিলেন সাংবাদিক ফখরুল ইসলাম। লালবাগ জোনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-অপারেশন) আসলাম তাকেও থাপ্পড় মারেন। আমি প্রতিবাদ করলে আমার শার্টের কলার ধরে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করেন তিনি। তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন বেশ কিছু সাংবাদিক। তারা বাধা দিলে গাড়িতে ওঠাতে ব্যর্থ হন। লালবাগ থানার ওসি কেএম আশরাফ বলেন, আমরা খবর পেয়েছি। এরই মধ্যে এসআই কালামকে ক্লোজড করার আদেশ দেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তদন্ত ছাড়া কিছু বলা যাচ্ছে না। ইতিমধ্যে আমরা প্রাথমিক পদক্ষেপ নিয়েছি।