গাজীপুরে জিসিসি-ইউনিসেফ আরবান প্রজেক্টের বার্ষিক অগ্রগতি পর্যালোচনা সভা

প্রকাশিত: 11:16 PM, January 29, 2020

জাগ্রত বাংলাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার: গাজীপুরে জিসিসি-ইউনিসেফ আরবান প্রজেক্টের বার্ষিক অগ্রগতি পর্যালোচনা সভা ২৯ জানুয়ারি বুধবার সকালে নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে সভাপতিত্ব করেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের (জিসিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম।

জিসিসি-ইউনিসেফ আরবান প্রজেক্টের সোস্যাল এ্যান্ড বিহিবিয়ার চেঞ্জ কমিউনিকেশন কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ারম্নল ইসলামের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য দেন, ইউনিসেফ ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগের ফিল্ড অফিসের প্রধান মোঃ ওমর ফারম্নক, জেলা তথ্য কর্মকর্তা মোঃ জালাল উদ্দিন, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এর প্রতিনিধি রাবেয়া আক্তার, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্রাকের এরিয়া ম্যানেজার আবদুর রাজ্জাক মোলস্না, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সুরভি’র এরিয়া কো-অর্ডিনেটর মোঃ আইয়ুব হোসেন সরকার, ইউনিসেফ ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগের প্রোগ্রাম অফিসার (ইমারজেন্সি) মোঃ আমান উলস্নাহ, প্রোগ্রাম অফিসার (শিক্ষা) মোঃ সাব্বির আহমেদ, প্রোগ্রাম অফিসার (ওয়াস) মোঃ ইমতিয়াজ আহম্মেদ, জিসিসি-ইউনিসেফ আরবান প্রজেক্টের সিনিয়র শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল হাসান, পস্ন্যানিং এ্যান্ড মনিটরিং কর্মকর্তা খন্দকার আবু সালেক প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ খাইরম্নজ্জামান, জিসিসি’র স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ রহমত উলস্নাহ, জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক লাজু শামসাদ হক, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এস এম আনোয়ারুল করিম, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ নাসির উদ্দিন, জেলা সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ নূরম্নল ইসলাম সহ জেলা-উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং জিসিসি’র কর্মকর্তা ও বিভিন্ন ওয়ার্ড কাউন্সিলর, সচিব।

জিসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, গত বছরে পর্যালোচনা আমরা সার্থক। ২০১৯ সালে কি অর্জন এবং কি চ্যালেঞ্জ তা আলোচনা হলো। আমার দিক থেকে শতভাগ সহযোগিতা করবো। এই জিসিসি-ইউনিসেফ আরবান প্রজেক্টকে ব্যক্তিগত পর্যায়ে এ ধরণের কার্যক্রমে কাউন্সিলরগণকে সহযোগিতা করতে বলেন তিনি।

ইউনিসেফ ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগের ফিল্ড অফিসের প্রধান মোঃ ওমর ফারুক বলেন, দাবী তুলেছেন। ওয়াস বস্নক, ডে কেয়ার সেন্টার দরকার। ২০২০ সালে ডে কেয়ার সেন্টার, ওয়াস বস্নক চলবে। কাউন্সিলরদের উচিৎ এ সকল ডে কেয়ার সেন্টার মডেল বাস্তবায়ন করণ।