কিডনির সমস্যা হলে এই সমস্ত লক্ষণ গুলি দেখা যায়

প্রকাশিত: 1:46 PM, December 7, 2019

জাগ্রত বাংলাদেশ

কিডনি শরীরের একটা খুব গুরুত্বপূর্ন অঙ্গ। যদিও শরীরের সমস্ত অঙ্গই গুরুত্বপূর্ন। কোন অঙ্গেরই ক্ষতি হলে শরীরে সমস্যার সৃষ্টি হয়। কিন্তু কিডনি এমন একটা অঙ্গ যেটি ধীরে ধীরে শরীরের ক্ষতি করে। সাধারণত আপনি সেই ক্ষতি প্রথম দিকে লক্ষ্য করতে পারবেন না। তাই আপনারা নিজেদের শরীরের ব্যাপারে বেশি সচেতন হোন সেটাই আজকের আলোচনার বিষয়।

এমন কিছু লক্ষণ আছে যা দেখলে আপনারা বুঝতে পারবেন কিডনির কোন সমস্যা হচ্ছে কিনা। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক সেই বিষয়গুলি। বিস্তারিত জানতে প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন…

১। প্রস্রাবে পরিবর্তন- যদি হটাত করে প্রস্রাবে পরিবর্তন লক্ষ্য করেন, অর্থাৎ প্রস্রাবের রঙ গাঢ় হয়েছে অথবা প্রস্রাব পাওয়া সত্ত্বেও হচ্ছে না অথবা কম বেশি হচ্ছে তাহলে তার কারন হতে পারে কিডনির সমস্যা।

 ২। প্রস্রাবের সময় ব্যাথা- আপনার যদি প্রস্রাবের সময় ব্যাথা অনুভুত হয় তাহলে তা কিডনির সমস্যার জন্য হতে পারে। এর ফল জ্বর বা পিঠে ব্যাথা হতে পারে।

৩। প্রস্রাবে রক্ত- প্রস্রাবে রক্ত খুবই ভয়ের একটা ব্যাপার। এমন হলে তৎক্ষণাৎ ডাক্তার দেখানো উচিৎ।

 ৪। দেহে ফোলা ভাব- কিডনির কাজ হল শরীরের বর্জ্য ও শরীরের অতিরিক্ত জল বের করে দেওয়া। কিডনির সমস্যা হলে সেই জল বের হয়না। ফলে শরীর ফুলে যায়।

৫। কাজে অমনোযোগ- কিডনির সমস্যা হলে রক্তে লোহিত কণিকা কমে যায়। তার ফলে মস্তিষ্কে রক্ত চলাচল কম হয়। ফলে মস্তিষ্কের কাজে বিঘ্ন ঘটে। তাই কোন কাজে মনোযোগ দেওয়া যায়না।

 ৬। ত্বকের সমস্যা- কিডনির সমস্যা হলে রক্তে বর্জ্য পদার্থের পরিমান বেড়ে যায়। ফলে ত্বকে র‍্যাশ, চুলকানির মতো নানারকম সমস্যা দেখা দেয়।

৭। বমি ভাব- কিডনির সমস্যা হওয়া মানে রক্তের সমস্যা, আর সেই থেকেই বমি ভাব আসে। অনেক সময় অতিরিক্ত বমিও হয়।

৮। ছোট ছোট শ্বাস- কিডনির রোগ হলে ফুসফুসে একধরনের তরল জমে যায়। তাছাড়া রক্ত শূন্যতা দেখা দেয়। আর এগুলোর ফলেই শ্বাস নিতেও সমস্যা হয়। তাই ছোট ছোট শ্বাস পরে।

অনেক ক্ষেত্রে পিঠে নীচের দিকে ব্যাথা অনুভূত হয়। কিন্তু তাই বলে এই নয় যে পিঠে ব্যাথা মানেই কিডনির সমস্যা। যারা ভাবেন পিঠে ব্যাথা মানেই কিডনির সমস্যা তারা ভুল ভাবেন।