মহিলা মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির তিন শিক্ষার্থী নিখোঁজ, আটক ৪ শিক্ষক

প্রকাশিত: 3:53 PM, September 14, 2021

 নিজস্ব প্রতিবেদক: জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলায় দারুত তাক্বওয়া ক্বওমী মহিলা মাদ্রাসা থেকে দ্বিতীয় শ্রেণির তিন ছাত্রী নিখোঁজ হয়েছে। এ ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাদ্রাসার মুহতামিমসহ ৪ শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে তাদের ওই মাদ্রাসা থেকে আটক করা হয়। এ সময় ওই মাদ্রাসার অন্য শিক্ষার্থীদের রাতেই অভিভাবকদের হাতে তুলে দিয়ে মাদ্রাসাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ইসলামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজেদুর রহমান জানান, ইসলামপুর উপজেলার গোয়ালেরচর ইউনিয়নের বাংলা বাজার এলাকায় দারুত তাক্বওয়া ক্বওমী মহিলা মাদ্রাসা থেকে রবিবার ভোরে গাইবান্ধা ইউনিয়নের পোড়ারচর সরদারপাড়া গ্রামের মাফেজ শেখের মেয়ে মীম আক্তার (৯), গোয়ালেরচর ইউনিয়নের সভূকুড়া গ্রামের সুরুজ্জামানের মেয়ে সূর্যবানু (১০) ও মোল্লাপাড়া গ্রামের মনোয়ার হোসেনের মেয়ে মনিরা আক্তার (১১) নামের দ্বিতীয় শ্রেণির তিন শিক্ষার্থী রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়।
এ ঘটনায় সোমবার বিকালে মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান ইসলামপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। ওইদিন রাতে ইসলামপুর সার্কেলের এএসপি সুমন মিয়ার নেতৃত্বে পুলিশ মাদরাসার সকল শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দিয়ে মাদ্রাসাটি বন্ধ করে দেয়। এ সময় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান, মাদ্রাসা শিক্ষক ইলিয়াস হোসেন, রাবেয়া ও শুকরিয়াকে আটক করা হয়।

মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা মো. আসাদুজ্জামান জানান, মাদ্রাসাটি আবাসিক হওয়ায় শিক্ষার্থীরা রাতে মাদ্রাসার কক্ষেই থাকে। রবিবার ভোরে শিক্ষার্থীদের ফজরের নামাজ পড়ার জন্য ঘুম থেকে জাগানো হয়। অন্যান্য ছাত্রীর মতোই দ্বিতীয় শ্রেণির ওই তিন ছাত্রীও নামাজের প্রস্তুতি নেয়। নামাজের পর তাদের আর খুঁজে পাওয়া না গেলে তাদের উদ্ধারে সোমবার বিকালে থানায় জিডি করা হয়।

ইসলামপুর সার্কেলের এএসপি সুমন মিয়া জানান, নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের উদ্ধারে সোমবার রাত থেকেই অভিযান শুরু করা হয়েছে এবং এই উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।