বৃদ্ধাকে নির্যাতন: স্বামীসহ গৃহকর্মী রেখা ৮ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত: 5:38 PM, January 22, 2021

ঢাকা: রাজধানীর মালিবাগের একটি বাসায় বৃদ্ধাকে নির্যাতন ও চুরির ঘটনায় গ্রেফতার গৃহকর্মী রেখা আক্তার ও তার স্বামী ফরহাদ এরশাদের ৮ দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহজাহানপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রেজাউল করিম দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকার ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ উর রহমানের এ আদেশ দেন।

এর আগে, ২০ জানুয়ারি মধ্যরাতে গৃহকর্মী রেখা ও তার স্বামী ফরহাদকে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে গ্রেফতার করে শাহজাহানপুর থানা পুলিশ। সেখান থেকে তাদের ঢাকায় নিয়ে আসতে ২২ জানুয়ারি সন্ধ্যা হয়ে যায়। তাই গতকাল তাদের আদালতে তোলা হয়নি।

গত ১৮ জানুয়ারি সকাল সোয়া ১০টার দিকে রাজধানীর মালিবাগে ৭৫ বছরের বৃদ্ধাকে বিবস্ত্র করে নির্মম নির্যাতনের পর স্বর্ণালঙ্কারসহ ২১ লাখ টাকার মালামাল লুট করে পালিয়ে যায় গৃহকর্মী রেখা আক্তার।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম শাখার উপকমিশনার ওয়ালিদ হোসেন বলেন, ‘বৃদ্ধা বিলকিস বেগম কিডনির সমস্যাসহ বিভিন্ন বার্ধক্যজনিত রোগে শয্যাশায়ী। কর্মব্যস্ত সন্তানরা তার সেবা করার জন্য রেখা নামের ওই গৃহকর্মীকে বাসায় নিয়োগ করে। সেই গৃহকর্মীর হাতে নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে বৃদ্ধা বিলকিস এখন সংকটাপন্ন। সন্তানরা বাসায় না থাকার সুযোগে বিবস্ত্র করে বৃদ্ধাকে পেয়ে জখম করে রেখা। শরীরে ঢেলে দেয় ঠাণ্ডা পানি। রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত করে। এরপর শরীর থেকে সোনার গহনা খুলে নেয়। এরপর বাসার আলমিরা থেকে স্বর্ণালঙ্কার, টাকাসহ ২১ লাখ টাকার মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়।’

গত সোমবার রাজধানীর মালিবাগের এই ঘটনাটি বৃদ্ধার সন্তানরা বুঝতে পারেন বাসায় ফিরে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে। পরবর্তীতে ওই ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় শাজাহানপুর থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল থেকে রেখাকে গ্রেফতার করে। এরপর তার স্বামী এরশাদকে একই এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।